শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

খুশকি কেন হয়, সমাধানের উপায় কী?

নিউজ ডেস্কঃ শীত আসতেই বেড়ে যায় খুশকির সমস্যা। এছাড়া এ সময় চুলও হয়ে পড়ে রুক্ষ ও শুষ্ক। শীতে মাথার ত্বক ও চুল আর্দ্রতা হারায়। ফলে খুশকির সমস্যা বাড়ে ও স্ক্যাল্পে চুলকানিসহ চুল পড়ার সমস্যা দেখা দেয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, খুশকি হওয়ার মূল কারণ হলো ফাঙ্গাল ইনফেকশন। ম্যালাসেজিয়া নামক একটি ফাঙ্গাসের কারণেই মূলত খুশকি হয়। এছাড়া স্ক্যাল্পে কোনো গুরুতর সমস্যার কারণেও খুশকি হতে পারে। আবার একজনের চিরুনি অন্যজন শেয়ার করার মাধ্যমেও এটি ছড়াতে পারে।

নিয়মিত যারা চুল পরিষ্কার রাখেন না, তাদের মাথার ত্বকে ঘাম জমার কারণে ফাঙ্গাল ইনফেকশন হয়। ফলে খুশকির সমস্যা বেড়ে যায়। আবার অনেকে সারাবছরই খুশকির সমস্যায় ভোগেন। এর মূল কারণ হতে পারে চুলের প্রতি অযত্ন ও অবহেলা। নিয়মিত শ্যাম্পু করে স্ক্যাল্প পরিষ্কার না রাখলে খুশকি বাড়ে।

স্ক্যাল্প শুষ্ক হলে খুশকি বাড়ে। এ কারণে শীতে শুষ্ক ত্বকের সমস্যায় খুশকি হতে পারে। তাই স্ক্যাল্পে ও শরীরের অন্যান্য অংশে আর্দ্রতা বজায় রাখার চেষ্টা করুন।

খুশকি দূর করার ঘরোয়া উপায় কী?

নিম ব্যবহার করুন

নিমে থাকে অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান, যা ড্যানড্রফ দূর করে। এর অ্যান্টি ফাঙ্গাল উপাদানও স্ক্যাল্প ভালো রাখে।

‘ব্রাজিলিয়ান জার্নাল অব মাইক্রোবায়লজি’তেও নিমের এই অ্যান্টি ফাঙ্গাল গুণের বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে।

এজন্য কয়েকটি শুকনো নিম পাতা ভালো করে গুঁড়া করে নিন। এর সঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন।

এই পেস্ট আপনার স্ক্যাল্পে ও চুলের গোড়ায় খুব ভালো করে লাগিয়ে ঘণ্টাখানেক রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন।

সপ্তাহে অন্তত ১-২ দিন নিমের হেয়ার মাস্ক চুলে ব্যবহার করলেই খুশকি থেকে মিলবে মুক্তি।

সূত্র: ওয়েব এমডি


Leave a Reply

Your email address will not be published.

Design & Developed BY N Host BD