মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন

ড.আব্দুল ওয়াদুদ এর গবেষনালব্ধ ফলাফল কাজে লাগিয়ে মুলুকান কাকাতুয়া পাখির সফল ব্রিডিং

নিউজ ডেস্কঃ এশিয়া মহাদেশের মধ্যে এই প্রথম পাখি পশু আর প্রকৃতি প্রেমী লেখক গবেষক ড.আব্দুল ওয়াদুদ এর গবেষনালব্ধ ফলাফল কাজে লাগিয়ে রাজধানীর উর্দো রোড়ে মোঃ রহমতউল্লাহ অমি নিজ শখের খামারে সফলভাবে মুলুকান কাকাতুয়া পাখির সফল ব্রিডিং করে ডিম থেকে বাচ্চা ফুটেয়েছেন।

তিনি পাখি বিশেষজ্ঞ ড.আব্দুল ওয়াদুদ এর সঠিক পরামর্শে দিকনির্দেশনায় ‘মেল এবং ফিমেলের জন্য প্রজণনের উপযুক্ত পরিবেশ দিতে পারার কারণে কাকাতুয়ার ডিম থেকে বাচ্চা ফুটেছে,তা না হলে আমার পক্ষে কোনে দিনও এই দুরসাধ্য কাজ সম্ভব হতো না।মুলুকান কাকাতুয়ার কয়টি কালার হয় সেই ধারনা ও আমার ছিলো না সেটা ও আমি ড.আব্দুল ওয়াদুদ স্যার এর কাছ থেকে তাদের কত প্রকার রং হয় সেটা জেনেছি। বিশেষ করে মুলুকান কাকাতুয়ার সারা শরীর দেখতে সাদা রং কালো ঠোট এবং মাথায় হলুদ রং হয়ে থাকে।

পাখি বিশেষজ্ঞ ড.আব্দুল ওয়াদুদ বাংলাদেশে সর্বপ্রথম ব্যয়বহুল সৌখিন পাখি ম্যাকাও পাখির সফল ব্রিডিং করেছেন,যার পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা কাজে লাগিয়ে এদেশে অসংখ্য বেকার যুবক’কে পাখি পালনে উদ্বুদ্ধ করে বেকারত্ত দুরী করনে এক অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি মনে করেন’পাখিও মানুষকে ভালোবেসে সোহাগ করতে পারে। খাঁচায় থেকেও পাখি মানুষের ডাকে সাড়া দিয়ে কথা বলে। পাখির সাথে মানুষের সখ্যতাও হতে পারে। খাঁচায় জন্ম নেয়া রঙ-বে-রঙের এসব পাখিদের খাঁচায় লালন-পালন করা হয়।

পাখি প্রেমিকদের ভালবাসায় শিক্ত হয়ে খাঁচাবন্দী হয়েই পাখির জীবন কেটে যায়। খাঁচায় পোষমানা এসব পাখি আবার মানুষের বাণিজ্যের অংশও হতে পারে। পাখি গবেষক ড.আব্দুল ওয়াদুদ এর গবেষনা লব্ধ ফলাফল কাজে লাগিয়ে তিনি আবিস্কার করেছেন থিউরি ফিকামলি “তত্ত্ব”মানুষের সুস্থ থাকার জন্য ড.আব্দুল ওয়াদুদ এর এক যুগান্তরকারী থিউরি ফিকামলি “তত্ত্ব”যা বিশ্ব ব্যাপি সমার্ধিত হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Design & Developed BY N Host BD