রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

বসন্ত ডাকছে ওই

নিউজ ডেস্কঃ শীতের হিমেল হাওয়া বিদায়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে। তারই ফাঁকে কাটতে শুরু করেছে প্রকৃতির ধূসরতা। শীতের ভয়ে জবুথবু হয়েছিল যে প্রকৃতি, তার জীর্ণতা যেন মিলিয়ে যাচ্ছে দূরে। গাছে গাছে সবুজ পাতা আর ফুলের বাগানে রঙিন নানা ফুলের দেখা মিলতে শুরু করল বলে। হঠাৎ হঠাৎ মন কেমন করা বাতাস যেন বলে দিচ্ছে, বসন্তের বেশি বাকি নেই। শীতের আলস্য আর অসাড়তাকে গা ঝাড়া দিয়ে এবার বসন্তকে বরণ করে নেওয়ার পালা। প্রকৃতির পরিবর্তনের সঙ্গে আমাদের মধ্যেও কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসা জরুরি। নয়তো তাল মেলানো মুশকিল হয়ে যাবে। আপনি নিশ্চয়ই শীতের পোশাক বসন্তেও পরতে পারবেন না? এ পরিবর্তন তো একদিনে সম্ভব নয়; তাই ধীরে ধীরে নিতে হবে বসন্তের প্রস্তুতি।

শীত আছে, আবার শীত নেই। কম্বল মুড়ি দিলে গরম লাগে, না দিলে হালকা শীত লাগে। এ সময় আবহাওয়ার মেজাজ-মর্জি বোঝা মুশকিল। শীতের পোশাক তুলে রাখবেন কী রাখবেন না তা নিয়ে দ্বিধায় ভুগছেন অনেকে। হালকা শীতে পোশাক পরার জন্য রাখতে পারেন। তবে দিনেরবেলায় যেহেতু গরম বেড়ে যাচ্ছে, এ সময় ভারী পোশাক না পরাই ভালো। কারণ, তাতে অস্বস্তি বাড়তে পারে। বসন্তের প্রস্তুতি হিসাবে হালকা কাপড় নামিয়ে নিন অথবা এ জাতীয় পোশাক না থাকলে বানিয়ে নিতে পারেন। এ সময়ের আবহাওয়ার উপযোগী পোশাক বেছে নিন। সুতি, লিলেন ইত্যাদি জাতীয় কাপড়ে বেশি আরাম পাবেন। পোশাকের রঙের দিকেও খেয়াল রাখুন। চোখের আরাম হয় এমন রঙের পোশাক বেছে নিন। বেশি গাঢ় রঙের পোশাক ব্যবহার না করাই ভালো।

বসন্তের সাজ

শীতে মন ভরে সাজলেও বসন্তকালে তার লাগাম টানতে হবে। এ সময় খুব বেশি সাজলে ঘেমে নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে। আবার একটু ভারী সাজও মনে হতে পারে বেমানান। তাই প্রকৃতির মতোই সহজ ও স্বচ্ছ থাকুন। শীতের সময়ে সাজগোজের যেসব উপকরণ ব্যবহার করতেন, সেগুলো আপাতত তুলে রাখুন। কারণ, শীত ও বসন্ত এ দুই সময়ে ত্বক একই রকম আচরণ করে না। শীতে আপনি যে ক্রিম ও লোশন ব্যবহার করতেন, সেগুলো বসন্তে বেমানান। তাই ত্বকের ধরন বুঝে প্রসাধনী বেছে নিন। মুখে ভারীর বদলে হালকা মেকআপ বেছে নিন। ঠোঁটে গাঢ় রঙের বদলে ব্যবহার করতে পারেন হালকা রঙের লিপস্টিক। চোখের কোণে আঁকতে পারেন কাজলের হালকা লাইন। রূপচর্চার ক্ষেত্রেও বেছে নিন বসন্তের উপযোগী উপাদান। সবকিছুর ওপরে আপনার স্বস্তিকে প্রাধান্য দিন।

খাবার কেমন হবে

এবার আসা যাক খাবারের দিকে। শীতে মুখরোচক নানা খাবার আর পিঠাপুলি খেয়েছেন নিশ্চিন্তে। এবার সেখান থেকে সরে আসতে হবে। বিশেষ করে ঋতু পরিবর্তনের এ সময়ে খাবারে একটু এদিক-সেদিক হলেই পেটে অসুখ বেঁধে যেতে পারে। তাই বসন্তের প্রস্তুতি হিসাবে খাবারের তালিকায় আনুন পরিবর্তন। যে মৌসুমে যেসব খাবার শরীরের জন্য উপকারী সেগুলোই কিনতে পারেন। তাই বাজারে যেসব শাকসবজি ও ফলমূল উঠতে শুরু করেছে সেগুলো খাবারের তালিকায় যোগ করুন। রান্নার ক্ষেত্রেও একটু হালকা মেন্যু বেছে নিন। অল্প তেল-মসলায় রান্না করা খাবার এ সময়ের জন্য বেশি উপযোগী। সেই সঙ্গে পর্যাপ্ত পানি পানের অভ্যাস করুন।

খেয়াল রাখুন নিজের প্রতি

আবহাওয়া পরিবর্তনের সময় বিভিন্ন অসুখে আক্রান্ত হওয়া খুব সাধারণ একটি ঘটনা। কারণ, এ সময় শরীর আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে কিছুটা সময় নেয়। তাই রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হলে আপনি সহজেই আক্রান্ত হতে পারেন। সেজন্য সঠিক খাবার বেছে নিতে পারেন স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য। নিয়মিত ঘুম, গোসল, শরীরচর্চা ইত্যাদি মেনে চলুন। অসুখ নিয়ে হাসপাতালে ছোটাছুটি নিশ্চয়ই কোনো কাজের কথা নয়। এর বদলে চেষ্টা করুন অসুখ থেকে দূরে থাকতে। এ সময় শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে প্রচুর ধুলোবালি জমে। তাই নিয়মিত পরিষ্কার করুন আপনার ঘরও। জমে থাকা জীবাণু যেন আপনাকে আক্রমণ করতে না পারে সেদিকে সতর্ক থাকুন।

প্রকৃতির নতুনত্বকে গ্রহণ করতে হলে আপনাকেও থাকতে হবে সুস্থ ও সুন্দর। শরীর ভালো থাকলে মনও ভালো থাকবে। আর মন ভালো থাকলে সবকিছুই সুন্দর মনে হবে। তখন বসন্তের আগমনে ফুল বাগানের সব ফুলের সঙ্গে দুলে উঠবে আপনার হৃদয়ও। তাহলে বরণডালা হাতে নিয়ে বসন্তকে স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি এখনই শুরু হয়ে যাক।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

Design & Developed BY N Host BD