মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন

ভার্চুয়াল জব ফেয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে

নিউজ ডেস্কঃ গ্রাজুয়েটদের পছন্দের পেশা নির্বাচন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে ‘ভার্চুয়াল জব ফেয়ার-২০২১’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট (সিসিডি) উদ্যোগে আয়োজিত এ ফেয়ারে মোট ৩০ প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। দিনব্যাপী চলমান এই অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এমডি, সিইও ও এইচআর হেডদের অংশগ্রহণে সেশন পরিচালনা করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিডেটের চেয়ারম্যান মাসুদ খান প্রধান অতিথি এবং বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন ফর লার্নি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের প্রেসিডেন্ট ও ফিউচার লিডারস’র লিড কনসালটেন্ট-সিইও কাজী এম আহমেদ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য। এছাড়াও ‘গেস্ট অব অনার’ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. ফায়জুর রহমান, বিজনেস স্টাডিজের ডিন প্রফেসর ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী রেজিস্ট্রার মো. সাইফুল ইসলাম।

ফেয়ারে উপস্থিত বক্তারা বলেন, বিভিন্ন কোম্পানির কর্মকা- সর্ম্পকে শিক্ষার্থীদের জানাতেই এ উদ্যোগ। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের পেশা নির্বাচন করতে পেরেছে, তেমনি অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের ব্যবসা ও কর্মকা-ের লক্ষ্য অর্জনে পছন্দের প্রার্থী খুঁজেছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাসুদ খান বলেন, আগামীর বিশ্ব প্রযুক্তির। কয়েক বছর আগেও যে কাজটি করতে শত শত কর্মী প্রয়োজন হতো, বর্তমানে সেটি কর্মীবিহীন রোবট দিয়ে করা হচ্ছে। তিনি বলেন, জব মার্কেটে এমন অনেক বিষয় রয়েছে, যেগুলো এখনো বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়ানো হয় না। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের একাডেমিক পাঠের বাইরে বিজনেস স্কিল, সফট স্কিল, আইটি স্কিলসহ নিজেকে গঠনের ওপর গুরুত্ব দেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কাজী এম আহমেদ বলেন, সবার আগে গ্রাজুয়েটদের ‘সেলফ অ্যাওয়ারনেস’ জরুরি। নিজের দায়িত্ব নিজেকে নিতে হবে। তিনি বলেন, সবকিছুকে ইতিবাচক ভাবতে হবে। যা নেই, তা নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না। বরং যা আছে, তাই নিয়ে শুরু করতে হবে। কৃতজ্ঞতাবোধ থাকতে হবে। তবেই চাকরি জীবনে ভালো করা সম্ভব।

সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, বর্তমান যুগ প্রতিযোগিতার। এ যুগে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি কমিউনিকেশন ও টেকনোলজি জ্ঞান না থাকলে চাকরি পাওয়া সম্ভব নয়। তিনি বলেন, শিক্ষার সঙ্গে দক্ষতাও থাকতে হবে। তবেই শিক্ষার্থীরা ক্যারিয়ারসহ যেকোনো ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করতে পারবে। এ সময় তিনি উন্নত জাতি গড়তে তরুণদের দক্ষ ও যুগোপযোগী হিসেবে গড়ে তোলার ওপর জোর দেন।

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. ফায়জুর রহমান আয়োজিত ভার্চুয়াল ফেয়ারের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করেন। সেই সঙ্গে পড়ালেখার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের স্কিল ডেভেলপমেন্টের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
জব ফেয়ারে অংশ নেয়া ৩০ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস, আনোয়ার গ্রুপ, এলিট পেইন্ট, রক্সি পেইন্ট, র‌্যাংগস প্রভৃতি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Design & Developed BY N Host BD