রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

রাজধানী কিয়েভকে লক্ষ্য করে মধ্যরাতে ‘ব্যতিক্রমী হামলা’ রাশিয়ার

নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভকে লক্ষ্য করে মঙ্গলবার (১৬ মে) মধ্যরাতে ‘ব্যতিক্রমী হামলা’ চালিয়েছে রাশিয়া। কিয়েভের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাতের আঁধারে চালানো এ হামলায় ড্রোন, ক্রুস এবং খুব সম্ভবত ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে রুশ বাহিনী। কিয়েভে এ মাসে যা রাশিয়ার অষ্টম হামলা।তবে এসব হামলায় ব্যবহৃত ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্রের বেশিরভাগেই ধ্বংস করে দেওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেন। কিয়েভের সামরিক প্রশাসনের প্রধান সেরহি পোপকো বলেছেন, ‘হামলার তীব্রতার দিক দিয়ে এটি ব্যতিক্রমী ছিল। কম সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়েছে।’ টেলিগ্রাম অ্যাপে এ সামরিক কর্মকর্তা আরও বলেছেন, ‘প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, শত্রুদের বেশিরভাগ হামলাই আকাশে সনাক্ত ও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।’ তবে ইউক্রেনের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ঠিক কতগুলো ড্রোন বা ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করেছে সেই তথ্য সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি।

এছাড়া রাশিয়ার ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র কোনো লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে কিনা সেটিও নিশ্চিত নয়। স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাতে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মঙ্গলবার কিয়েভের ওবোলোনস্কি, শেভচেনকিভস্কি, সোলোমানস্কি এবং দারনাৎস্কি বিভাগে ক্ষেপণাস্ত্রের ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। এছাড়া রাশিয়াও হামলার জন্য ঠিক কতগুলো ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছিল সেটিও নিশ্চিত নয়। তবে এই হামলার সময় পুরো কিয়েভে সতর্কতামূলক সাইরেন বেজে ওঠে। কিয়েভের মেয়র ভিতালি ক্লিচকো টেলিগ্রাম চ্যানেলে জানিয়েছেন, রাশিয়ার নতুন হামলায় তিনজন আহত হয়েছেন এবং একটি বড় ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

রাজধানী কিয়েভের পাশের শহর বোরেসপিলেও ড্রোন হামলা হয়েছে। এখানেই কিয়েভের সবচেয়ে বড় বেসামরিক বিমানবন্দরটি অবস্থিত। তবে বর্তমানে বিমানবন্দরটি বন্ধ অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, কিয়েভে অন্তত ১০টি বড় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। এছাড়া হামলার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করা হলে যে শব্দ হয়— সেরকম শব্দ শুনতে পেয়েছেন তারা।   এর আগে ইউক্রেনীয় গোয়েন্দারা বলেছিলেন, বর্তমানে বড় ধরনের হামলা চালানোর সক্ষমতা নেই রাশিয়ার। তবে তারা জানিয়েছিলেন, রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ভান্ডার এখনো ফুরিয়ে যায়নি।

ফলে তারা ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে শক্তিশালী হামলা চালাতে পারে।  পরবর্তীতে মঙ্গলবার সকালে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী জানায়, রাতে রুশ বাহিনী ১৮টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছিল। এর সবগুলোই আটকে দিতে সমর্থ হয়েছেন তারা। এ ব্যাপারে টেলিগ্রামে ইউক্রেনের সেনাপ্রধান ভেলারি ঝালুঝনি বলেছেন, ‘সবমিলিয়ে বিভিন্ন ধরনের ১৮টি আকাশ, সমুদ্র এবং স্থলভিত্তিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়েছে। ১৮টি ক্ষেপণাস্ত্রের সবগুলোই সেনাবাহিনী এবং বিমানবাহিনীর আকাশ প্রতিরক্ষার মাধ্যমে ধ্বংস করা হয়েছে।’


Leave a Reply

Your email address will not be published.

Design & Developed BY N Host BD