রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন

শীতকালে সুস্থ থাকতে চা-কফি নাকি গ্রিন টি পান করবেন?

নিউজ ডেস্কঃ শীত এখনো পুরোপুরি জেঁকে বসেনি, তাতেই জ্বর-সর্দি-কাশিতে ভুগছেন কমবেশি সবাই। যাদের ঠান্ডা লাগার ধাত আছে, তাদের জন্য শীতকাল বেশ কষ্টের।

এ সময় হুট করেই সর্দি, কাশি শুরু হতে পারে তাদের। এক্ষেত্রে গরম পানীয় আপনাকে আরাম দেবে। গলা ব্যথা থাকলে উপকার পাবেন।

অনেক সময় হাঁচি-কাশির পরিমাণও কমাতে সাহায্য করে এসব পানীয়। আর বাড়িতে খুব সহজে তৈরি করে নেওয়া সম্ভব। শীত আসতেই সুস্থ থাকার ঘরোয়া টোটকা হিসেবে কয়েকটি স্বাস্থ্যকর গরম পানীয় ও তার গুণাবলী জেনে নিন-

ব্ল্যাক টি

অনেকেই ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে চায়ে দুধ ও চিনি খাওয়া পছন্দ করেন না। তারা লিকার বা রং চা পানে অব্যস্ত। শীতের দিনেও এ অভ্যাস বজায় রাখতে পারেন। লিকার চা বা কালো চা মেদ ঝরাতে ও ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এর পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

ব্ল্যাক কফি

কফিতে দুধ ও চিনি অপছন্দ হলে শীতে আপনার সঙ্গী হতে পারে ব্ল্যাক কফি। তবে আপনার প্রদাহজনিত সমস্যা থাকলে এই পানীয় এড়িয়ে চলাই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

তবে ব্ল্যাক কফির মধ্যে থাকা ক্যাফেইন এনার্জিবর্ধক। তাই কাজের ফাঁকে এক কাপ ব্ল্যাক কফি পান করলে মুহূর্তেই চাঙা হওয়া যায়। এছাড়া ত্বকেরও খেয়াল রাখে ব্ল্যাক কফি। তবে এই পানীয় স্বাদে তেতো প্রকৃতির। চাই চাইলে দুধ-চিনি মিশিয়েও পান করতে পারেন।

গ্রিন টি

গ্রিন টির স্বাস্থ্য উপকারিতা কমবেশি সবারই জানা। এই চায়ে থাকে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা মেটাবলিজম বাড়ায়। এছাড়াও ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

তবে অতিরিক্ত কোনো পানীয় পান করা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল নয়। তাই উল্লিখিত পানীয়গুলোর কোনওটিই অতিরিক্ত পরিমাণে না খাওয়াই ভালো। বিশেষ করে ঘুমের সমস্যা থাকলে রাতে চা-কফি এড়িয়ে চলাই মঙ্গলের।

সূত্র: এবিপি লাইভ


Leave a Reply

Your email address will not be published.

Design & Developed BY N Host BD